বঁইচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

বঁইচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

শহুরে জীবনে অপরিচিত হলেও দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি জনপ্রিয় ফল কাঁটাবহরী বা বঁইচি। ছোট গোলাকার ফলের মালা গেঁথে ছোট ছেলেমেয়েরা তা মজা করে খায়। গ্রামেগঞ্জে সাধারণত খেতের পাশে ঝোপঝাড়ে বঁইচি বেশি জন্মায়। অনেক সময় পাহাড়ের ঢালেও জন্মে। গাছ ঝোপালো এবং গাছের শাখা কাঁটাযুক্ত। এ কারণে বঁইচি কাঁটাবহরী নামেও পরিচিত। বর্তমানে বন উজাড় হওয়ায় গাছটি বিলুপ্ত প্রজাতির তালিকায়। সাধারণত ফাল্গুন-চৈত্র মাসে বঁইচিগাছে ফুল ধরে। পাঁচ পাপড়িযুক্ত ক্ষুদ্রাকৃতির ফুল। জ্যৈষ্ঠ মাস থেকে ফল পাকতে শুরু করে। কাঁচা ফল গোলাকার সবুজ। পাকলে রক্ত বেগুনি রং ধারণ করে। গোলাকার আঙুরের মতো বঁইচি খেতে অম্ল ও মিষ্টি স্বাদযুক্ত। বাজারে এখন রক্ত-বেগুনি রঙের আঙুরের মতো একধরনের ফল দেখতে পাবেন; এ ফলটির নাম কাঁটাবহরী বা বঁইচি।উপকারী এই বঁইচির রয়েছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারীতাও।

 

উপকারীতাসমুহঃ

১। এতে প্রচুর ফসফরাস, ক্যালসিয়াম, খনিজ ও জিংক আছে, যা আর্থরাইটিস প্রতিরোধে কাজ করে।

২। রক্তাল্পতা দূর করে বঁইচির মতো ফল নিয়মিত খেলে এতে থাকা আয়রন রক্তের পরিমাণ বাড়ায়। নারীদের জন্য এ ফল খাওয়া ভালো।

৩। সর্দি-কাশির উপকার সর্দি-কাশি সারাতে দারুণ উপকার করে বঁইচি ফল। এতে প্রচুর ভিটামিন এ, সি ও রিবোফ্লোবিন রয়েছে।

৪। ডায়রিয়া প্রতিরোধে ডায়রিয়া প্রতিরোধ দারুণ কাজ করে এটি। ডায়রিয়া হলে শরীর থেকে প্রচুর খনিজ বের হয়ে যায়, যা শরীরকে দুর্বল করে। শরীরে খনিজের ঘাটতি কাটাতে সাহায্য করে এটি।

৫। হাড়ের সমস্যা দূর করে হাড় ভালো ও মজবুত রাখতে বঁইচি ফল খেতে পারেন। এতে থাকা খনিজ উপাদান হাড় মজবুত করে এ হাড়ের রোগ প্রতিরোধ করে।

৬। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এতে প্রচুর থায়ামিন ও ভিটামিন এ আছে, যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এতে শাঁস শরীরের সংক্রমণ কমাতে সাহায্য করে।